ডেস্ক রিপোর্ট

২৯ মে ২০২২, ৪:২০ অপরাহ্ণ

সিওমেক শিক্ষার্থী কর্তৃক ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারীদের মারধরের ঘটনায় কর্মবিরতি ঘোষণা

আপডেট টাইম : মে ২৯, ২০২২ ৪:২০ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

বাংলাদেশ ৪র্থ শ্রেণি কর্মচারী সমিতি সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ শাখা আগামীকাল সোমবার (৩০ মে) থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি ঘোষণা ঘোষণা করেছে। আজ রোববার (২৯ মে) বিকেল ৪টায় কলেজ গেইটে বাংলাদেশ ৪র্থ শ্রেণি কর্মচারী সমিতির সকল নেতৃবৃন্দ ও কর্মচারীদের উপস্থিতি প্রতিবাদ সভায় এ কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়।

কর্মবিরতি ঘোষণাকালে বক্তারা বলেন, সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ শাখায় দীর্ঘদিন সরকারীভাবে জনবল নিয়োগ না হওয়ায় অফিস সহায়ক, গার্ড, বাবুর্চি, টেবিল বয়, আয়া, ক্লিনার পদে জনবল কম থাকায় কলেজের বিভিন্ন বিভাগে ও হোস্টেল অফিসে প্রচুর কর্মচারী সংকট রয়েছে। সেই হিসেবে কলেজ কর্তৃপক্ষ পদ-পদবীর ভেদাভেদ ভুলে অফিস সহায়ক দিয়ে বিভিন্ন হোস্টেলে গার্ডের ডিউটি পালন করে আসছে। এমতাবস্থায় বিভিন্ন হোস্টেলে বসবাসরত কতিপয় শিক্ষার্থীরা দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মচারীদের সাথে বিভিন্ন সময়ে অমানবিক নির্যাতন, অশালীন ও অপেশাদারিত্ব আচরণ করে আসছে। গত ৩ মাস পূর্বে শেখ রাসেল ছাত্রাবাসে অত্র কলেজের কর্মচারী অফিস সহায়ক রাশেন্দ্র তালুকদারকে অমানবিক নির্যাতন করে। পরবর্তীতে শনিবার (২৮ মে) রাতে ডা. সৈয়দ শামসুদ্দিন ছাত্রাবাসে ডিউটিকালীন সময়ে আরেক অফিস সহায়ক মোবারক মিয়াকেও নির্যাতন করেছে শিক্ষার্থীরা।

বক্তারা আরও বলেন, ঐ দিন দিবাগত রাত ৩টায় জি-ব্লকের একজন শিক্ষার্থী রুমমেটকে ঘুমন্ত অবস্থায় ও দরজা খোলা রেখে এফ ব্লকে এসে ৭/৮ জন শিক্ষার্থী মিলে গোল বৈঠক করছিল। পরবর্তীতে ঐ জি ব্লকের শিক্ষার্থী রাত ৪টায় জি ব্লকে গিয়ে দেখতে পায় অপর ছাত্রের মানিব্যাগ এবং মোবাইল ফোন নেই। এ ঘটনায় তারা বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী মিলে দায়িত্বে থাকা গার্ডকে খুজতে থাকে। গার্ড মোবারক মিয়াকে পেয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও মার ধরের হুমকি দমকি দেয়। এসময় শিক্ষার্থীরা গার্ড রুমের চেয়ার, খাট, লাইট, লাঠি, ভেঙ্গে রুমে চলে যায়। ঘটনার সূত্রপাত হিসেবে রোববার বিকেল ৩টায় কর্তব্যরত গার্ড তাজুল ইসলামকে আটক করে মোবারক মিয়াকে নিয়ে আসার কথা বলে শিক্ষার্থীরা। পরে ২০/৩০ শিক্ষার্থীরা গার্ড তাজুলকে সাথে নিয়ে অপর গার্ড মোবারককে ধরতে তার বাসায় যায় এবং তাকে না পেয়ে পরিবারের লোকনকে হুমকি-ধামকি দিয়ে আসে। আমরা মনে করি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের এ ধরনের জন্য কোনভাবেই মেনে নেয়ে যায় না। তাই আমরা এহেন নির্যাতনের প্রতিবাদে বাংলাদেশ ৪র্থ শ্রেণি কর্মচারী সমিতি সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ শাখা অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি ঘোষণা করলাম। সুষ্ঠু সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আমরা কর্মস্থলে ফিরে যাবে না।
এসময় বাংলাদেশ ৪র্থ শ্রেণি কর্মচারী সমিতি সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ শাখার বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার করুন