ডেস্ক রিপোর্ট

৭ জুন ২০২২, ৩:০৯ অপরাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে চিকিৎসার জন্য ৫ লক্ষ টাকার চেক হস্তান্তর

আপডেট টাইম : জুন ৭, ২০২২ ৩:০৯ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খাঁন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বের বুকে একটি উন্নতশীল রাষ্ট্র হিসেবে পরিগণিত করিয়েছেন এবং যেকোনো দূর্যোগ মোকাবেলায় পুরো বিশ্বে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। প্রধানমন্ত্রী সবসময় জনগণের কল্যাণের কথা চিন্তা করেন। ১৯৭১ সালের ০৯ ই এপ্রিল মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা দেওয়ার সময় হানাদার বাহিনীর হাতে নিহত হন তৎকালীন সিলেট মেডিকেল কলেজের সহযোগী নার্স মাহমুদুর রহমান। পরবর্তী সময়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শহিদ মাহমুদুর রহমানের স্ত্রী ছমিরুন নেছার নামে দুই হাজার টাকার চেক প্রদান করেন। শহিদ মাহমুদুর রহমানের সন্তান মো. নুর মিয়া বর্তমানে হৃদরোগে আক্রান্ত শুনে তার চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী ৫ লক্ষ টাকার চেক প্রদান করেছেন। এভাবেই আমাদের দেশরত্ম প্রধানমন্ত্রী সারাদেশের মানুষকে আগলে রেখেছেন।

সিলেট জেলা পরিষদের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান ও সিলেট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য এ. জেড. রওশন জেবিনের উদ্যোগে ১৯৭১ সালে মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসাসেবা প্রদানের সময় হানাদার বাহিনীর হাতে শহিদ হওয়া সহযোগী নার্স মাহমুদুর রহমানের সন্তান মো. নুর মিয়ার চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ৫ লক্ষ টাকার চেক হস্তান্তরের সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

গতকাল সোমবার (০৬ জুন) রাতে চেক হন্তান্তরে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ শমসের জামাল, উপদপ্তর সম্পাদক মো. মজির উদ্দিন, সিলেট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সালমা সুলতানা, সিলেট মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান হেলেন আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাধূরী গুণ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন আহমদ কয়েস ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া মাসুক প্রমূখ।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধুর দুই হাজার টাকা চেক প্রদানের পর শহিদ মাহমুদুর রহমানের পরিবার আর কোনো অনুদান পায়নি। সম্প্রতি মো. নুর মিয়া হৃদরোগে আক্রান্ত এবং তার হার্টে রিং বসানো হয়েছে। পারিবারিক অস্বচ্ছলতার কথা শুনে সিলেট জেলা পরিষদের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান ও সিলেট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য এ. জেড. রওশন জেবিন নিজে উদ্যোগ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে আর্থিক সাহায্যের আবেদন করান। বিমেষ সুপারিশ করেন গাজী মোহাম্মদ শাহ নেওয়াজ মিলাদ গাজী এম.পি, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খা

শেয়ার করুন