ডেস্ক রিপোর্ট

১৪ জুন ২০২২, ৩:৪০ অপরাহ্ণ

কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেয়রের বিরুদ্ধে বিএনপি’র কার্যালয় ভাংচুরের অভিযোগ

আপডেট টাইম : জুন ১৪, ২০২২ ৩:৪০ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

ডেস্ক রিপোর্ট:নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য তেল-গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিক্ষোভ মিছিল বের করে কানাইঘাট উপজেলা ও পৌর বিএনপি। সেই মিছিলে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন কানাইঘাট উপজেলা বিএনপি নেতৃবৃন্দ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কানাইঘাট উপজেলা বিএনপির সভাপতি মামুন রশীদ।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘গত ১৩ জুন জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য তেল-গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়। সেই কর্মসূচির অংশ হিসেবে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে অবহিত করে কানাইঘাট উপজেলা ও পৌর বিএনপির যৌথ উদ্যোগে কানাইঘাট পূর্ব বাজার দলীয় কার্যালয়ের সম্মুখ থেকে মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি সামান্য অগ্রসর হতেই পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী সরকারদলীয় সংগঠন ছাত্রলীগ ও যুবলীগের আব্দুর রহমান, রুমান ও জুনেদ হাসান জীবনের নেতৃত্বে শতাধিক নেতাকর্মী মিছিলে অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। হামলায় আমাদের দলের অন্তত ১০/১২ জন নেতাকর্মী মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। আহতরা বর্তমানে বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেয়রের বিরুদ্ধে দলীয় উপজেলা ও পৌর কার্যালয় ভাংচুরের অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, ওই দিন নির্ধারিত মিছিল ও পথসভা শেষ করে নিজ নিজ গন্তব্যে চলে যাই। এর প্রায় দুই ঘন্টার পর কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বিনা ভোটের মেয়র লুৎফুর রহমানের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সশস্ত্র ক্যাডার বাহিনী দলীয় উপজেলা ও পৌর কার্যালয় ভাংচুর করেন। পূর্ব বাজারে আমাদের দলীয় কার্যালয়ের তালা ভেঙ্গে বিপুল সংখ্যক চেয়ার টেবিল, অন্যান্য আসবাবপত্র এমনকি সাবেক রাষ্টপতি জিয়াউর রহমান, চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমানের ছবি ভাংচুর করে প্রকাশ্যে বাজার পয়েন্টে আগুন ধরিয়ে দেড়ঘন্টাব্যাপী উল্লাস নৃত্য করে। এর মাধ্যমে তাদের সন্ত্রাসী কার্যক্রমের ষোলকলা পূর্ণ করে। যা কানাইঘাট বাজারের ব্যবসায়ী ও উপস্থিত জনতা প্রত্যক্ষ করেন। এ ঘটনাটি বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে লাইভ সম্প্রচার করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানান এবং এর সাথে জড়িত সংশ্লিষ্টদের গ্রেপ্তারের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি আশিক উদ্দিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী, সাবেক সহসভাপতি মামুন রশীদ মামুন, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়ছল, সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহমদ, কানাইঘাট উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাজী মো. শরীফুল হক, পৌর বিএনপির সভাপতি নূরুল হোসেন বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জেলা যুবদলের আহবায়ক সিদ্দিকুর রহমান পাপলু, কানাইঘাট উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি ওয়েছ আহমদ, পৌর বিএনপির সহসভাপতি রুমান সিদ্দিকি ও জালাল আহমদ জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক দেলওয়ার ইসমাইল প্রমুখ।

শেয়ার করুন