ডেস্ক রিপোর্ট

৬ আগস্ট ২০২২, ৮:৩৮ পূর্বাহ্ণ

যুক্তরাজ্য প্রবাসী পিতা-পুত্রের মৃত্যুর পর মারা গেলেন মেয়ে সামিরাও

আপডেট টাইম : আগস্ট ৬, ২০২২ ৮:৩৮ পূর্বাহ্ণ

শেয়ার করুন

ওসমানীনগর প্রতিনিধি :সিলেটের ওসমানীনগরে অচেতন অবস্থায় উদ্ধারের পর যুক্তরাজ্য প্রবাসী রফিকুল ইসলাম ও তার ছেলে মাহিকুল ইসলামের মৃত্যুর পর এবার রফিকুল ইসলামের মেয়ে সামিরা ইসলামও মারা গেছেন।

গত শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাপসাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দায়িত্বরত পুলিশ ফাড়ির ইনচার্য এসআই জনি চৌধুরী সামিরা ইসলামের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে সামিরার মা ও এক ভাই বাসায় চলে গেছেন বলে জানান তিনি।

গত ২৫ জুলাই রাতের খাবার খেয়ে ঘুমাতে যান প্রবাসী পরিবারের পাঁচ সদস্য যুক্তরাজ্য প্রবাসী রফিকুল ইসলাম (৫০) ও তার ছোট ছেলে মাহিকুল ইসলাম (১৮), রফিকুল ইসলামের স্ত্রী হুছনারা বেগম (৪৫), ছেলে সাদিকুল ইসলাম (২৫) ও মেয়ে সামিরা ইসলাম (২০)। তাদের মধ্যে রফিকুল ইসলাম ও ছেলে মাহিকুল ইসলাম মারা যান। আশঙ্কাজনক অবস্থায় অন্যদের ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। তাদের মধ্যে মা-ছেলে সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন। কিন্তু ১১ দিনেও ফিরছিল না সামিরার জ্ঞান। চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন, বিষক্রিয়ায় সামিরার কিডনি, লিভার কাজ করছিল না।

রফিকুল ইসলামসহ তার পরিবার, যুক্তরাজ্য থেকে গত ১২ জুলাই দেশে আসেন। গত ১৮ জুলাই সিলেটের ওসমানীনগরের তাজপুরে ওই ফ্লাটের দ্বিতীয় তলার একটি ইউনিটে ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন।

গত ২৫ জুলাই রাতের খাবার শেষে প্রবাসী রফিক তার স্ত্রী সন্তানসহ একটি কক্ষে এবং রফিকুল ইসলামের শ্বশুর আনফর আলী, শাশুড়ি বদরুন্নেছা, শ্যালক দেলোয়ার হোসেন, শ্যালকের স্ত্রী শোভা বেগম ও মেয়ে সাবিলা বেগম (৮) অন্যান্য কক্ষে ঘুমিয়ে পড়েন।

শেয়ার করুন