ডেস্ক রিপোর্ট

২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১:৩৫ অপরাহ্ণ

৪ ফেব্রুয়ারি বিভাগীয় শহরে বিএনপির সমাবেশ

আপডেট টাইম : জানুয়ারি ২৫, ২০২৩ ১:৩৫ অপরাহ্ণ

শেয়ার করুন

বিএনপির বন্দি নেতাকর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি, সরকারের দমন-পীড়ন, গ্যাস ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে পূর্বঘোষিত ১০ দফা দাবি বাস্তবায়নে আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি দেশের সব বিভাগীয় শহরে সমাবেশ করবে বিএনপি।

আজ বুধবার ( ২৫ জানুয়ারি) বিকেলে নয়াপল্টনে আয়োজিত এক সমাবেশে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

১৯৭৫ সালের ২৫ জানুয়ারিকে গণতন্ত্র হত্যা দিবস উল্লেখ করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ১০ দফা দাবি আদায়ে ঢাকা মহানগর বিএনপি এ সমাবেশের আয়োজন করে।

সমাবেশে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘১৯৭৪-৭৫ সালের কথা ভুলে যান কেন। চারটি পত্রিকা রেখে সব পত্রিকা বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। গণতন্ত্রকে হত্যা করে একদলীয় বাকশাল গঠন করা হলো। এরপর তথাকথিত বুদ্ধিজীবী তার সঙ্গে যোগ দিয়েছিল।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী। অথচ তাকেই সন্ত্রাস করে দল থেকে বের করে দেয়া হয়।’

আওয়ামী লীগ প্রথম থেকেই একটা সন্ত্রাসী দল উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘তাদের সন্ত্রাসী কার্যক্রমে আমাদের এই পার্টি অফিসের সামনেই নিহত হলেন আমাদের কর্মী মকবুল। গুলি করে তার বুক ঝাঝরা করে দেয়া হয়েছিল। আমাদের ১৭ জন নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। তাদের পরিবার, শিশু বাচ্চার কাছে কী জবাব দেব আমরা।’

‘যারা আমাদের ভাইদের হত্যা করেছে, তাদের অবশ্যই এ ঋণ শোধ করতে হবে। আমাদের রিকশাচালক ভাইরা পাশেই তাদের রিকশা রেখে আজ এখানে চলে এসেছে। তারা আজ চাল-আটা কিনতে পারে না। বিদ্যুতের দাম বাড়ছে, গ্যাসের দাম বাড়ছে। তারা বলেন সব নাকি রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে হয়েছে। আর এই যে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করলেন, কানাডায় বাড়ি করলেন, দশ হাজার কোটি টাকার প্রজেক্ট ত্রিশ হাজার কোটি টাকায় নিলেন। তখন কিছু হয়নি?,’ বলেন ফখরুল।

শেয়ার করুন